1. [email protected] : ইকোনোমিক বিডি প্রতিবেদক : ইকোনোমিক বিডি প্রতিবেদক
  2. [email protected] : ইকোনোমিক বিডি : ইকোনোমিক বিডি
  3. [email protected] : muzahid : muzahid
  4. [email protected] : woishi : woishi
বিএসইসি’র চেয়ারম্যানের প্রতি এক বিনিয়োগকারীর আবেদন
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২৫ অপরাহ্ন

বিএসইসি’র চেয়ারম্যানের প্রতি এক বিনিয়োগকারীর আবেদন

  • পোস্ট হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন, ২০২২
bsec

রাম লক্ষণকে খাবার দিয়ে বলতো ধরো লক্ষণ। লক্ষণ খাবার নিয়ে রেখে দিতো খেতোনা। কারণ রাম তাকে খেতে বলেনি। আর লক্ষণ খেলো কিনা সেটাও কোনদিন রাম খোঁজ নিয়ে দেখেননি।

এভাবে লক্ষণ এক যুগ মানে বারো বছর না খেয়েছিল। আমাদের শেয়ারবাজার ভালো করার জন্য কর্তৃপক্ষ গত বারো (১২) বছর যাবত ধরো লক্ষণের মতো হাজারো উদ্যোগ নিয়েছে। যথাযথ নির্দেশও দিয়েছে। কিন্তু সেটা কতটুকু বাস্তবায়ন হয়েছে তা আর খোঁজ নিয়ে দেখেননি। যার কারণে বাজার আজও ভালো হয়নি।

যদি সত্যি সত্যিই মন থেকে উদ্যোগ নিতো তাহলে বাস্তবে তার প্রতিফলন দেখা যেতো। অনেক উদ্যোগের পাশাপাশি সর্বশেষে বাজার ভালো করার জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রত্যেকটি তফসিলি ব্যাংককে ২০০ কোটি টাকার ফান্ড গঠন করতে বলেছে। এখন পর্যন্ত ১৫টি ব্যাংক বলছে তারা নাকি ২০০ কোটি টাকা করে ফান্ড গঠন করেছে।

আমার বিশ্বাস তারা ফান্ড গঠন করেইনি। করলেও এখন পর্যন্ত বাজারে এক টাকাও বিনিয়োগ করেনি। ব্যাংকের যেটুকু বিনিয়োগ আছে তা পূর্বের। কারণ বৃক্ষ তোমার নাম কি? ফলেই পরিচয়। যদি সত্যি সত্যিই তারা বিনিয়োগ শুরু করতো তাহলে বাজারে তার প্রতিফলন দেখা যেত।

তাই কর্তৃপক্ষকে বলছি ধরো লক্ষণের মত উদ্যোগ নিয়ে কোন লাভ হবে না। বাজারকে যদি সত্যি সত্যিই ভালো করতে চান তাহলে মন থেকে উদ্যোগ নিন আইন করে ব্যাংকগুলোকে দ্রুত বিনিয়োগে বাধ্য করুন। প্রয়োজনে একটি তদারকি কমিটি গঠন করে দিন, যাদের কাজ হবে প্রতিমাসে কোন ব্যাংক কত টাকার বাই সেল করছে তা সরকার এবং বিনিয়োগকারীদের সামনে তারা তুলে ধরবে।

তাছাড়া প্রতিমাসে দুই তিনটা আইপিও দিয়ে বাজার থেকে মানি ড্রেন আউট করা বন্ধ করুন। চাহিদা এবং জোগানকে বুঝতে শিখুন। ব্যাংক এক্সপোজার লিমিটের সংজ্ঞায় পরিবর্তন আনুন। অর্থাৎ ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ ক্রয় মুল্যে হিসাব করুন, বাজার মুল্যে নয়। বাইব্যাক আইন চালু করুন। প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং করুন।

আপনাদের তো সারভিলেন্স সফটওয়্যার আছে সেটা কাজে লাগান। কোন হাউজ বা কোন বড় বিনিয়োগকারী এগ্রেসিভ বাই সেল করছে কিনা যাচাই করুন। বিনিয়োগকারীদের বাজার নিয়ে স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের সুযোগ দিন।

স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড গঠন করে বাজারকে যে সাপোর্ট দিতে চেয়েছিলেন, তা দ্রুত বাস্তবায়ন করুন। বাজার ভালো করতে প্রয়োজনে বিনিয়োগকারীদের সাথে আলোচনায় বসুন, তাদের মতামত নিন। বাজার ভালো করুন।

বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরে আনুন। মনে রাখবেন এই বাজার ভালো হলে ৩৩ লাখ বিনিয়োগকারী উপকৃত হবে। আপনাকে ভালো বলবে। আপনার জন্য দোয়া করবে।

শেয়ার দিয়ে সাথেই থাকুন..

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ